google verifie

অনলাইনে ইউটিউবে কাজ করে টাকা আয় করার উপায়। Youtube Online Marketing BD.

ইউটিউবে টাকা আয় করার উপায়

আসসালামু আলাইকুম। 
আমি মনে করি বর্তমানে অনলাইনে কাজ করে তাড়াতাড়ি সফলতা পাওয়ার সহজ একটি মাধ্যম হচ্ছে ইউটিবে টাকা আয় করা।কারন কোনো কিছু জানার প্রয়োজন হলেই আমরা ইউটিউবে গিয়ে সার্চ দিলেই খুব সহজেই পেয়ে যায়।যারা এন্ডোয়েড মোবাইল ব্যবহার করে তাদের মাঝে ইউটিউবে ভিডিও দেখে না এমন মানুষ খুজে পাওয়া অসম্ভব।  ইউটিউবের মত আরো অনেক ভিডিও শেয়ারিং ওয়েবসাইট রয়েছে যেই গুলুতে আপনি চাইলে ভিডিও মার্কেটিং নিয়ে কাজ করতে পারেন কিন্তু ঐ গুলুতে ইউটিউবের মত এতো সুবিধা নেই ও জনপ্রিয়তাও নেই।ইউটিউবের নিয়ম মেনে রেগুলার ইউটিউবে ভিডিও আপলোড করলে আপনি খুব তারাতাড়ি ইউটিউবে সফল হতে পারবেন।

ইউটিউবে টাকা আয় করার উপায়।


ইউটিউবে আপনি যেকোনো ধরনের ভিডিও নিয়ে কাজ করতে পারেন।ইউটিউবে আপনি ভিডিও শেয়ার করার সময় ভিডিওর এসিও ঠিক মত করতে হবে।যেমন ভিডিওর ট্যাগ, টাইটেল, ডেসক্রিপশন ভিডিওর সাথে মিল রেখে ঠিক মত বসাতে হবে।যেই ভিডিও তৈরী করেন না কেন সব সময় খেয়াল রাখতে হবে ভিডিও গুলু যেন কোয়ালিটি ফুল হয়। তাহলেই আপনার ভিডিও রেং করবে তারাতারি।ইউটিউব থেকে টাকা আয় করার অনেক গুলু উপায় রয়েছে।যেমন গুগল এডসেন্স, এফিলিয়েট মার্কেটিং, প্রোডাক্ট রিভিউ।

১.গুগল এডসেন্স, যেখান থেকে ভিডিওতে এড বসানো হয়।এবং ভিডিও চলার অটোমেটিক এড আসবে এডের উপরে কেউ ক্লিক করলেই এডসেন্স একাউন্টে ডলার জমা হবে।

২.এফিলিয়েট মার্কেটিং, কিছু প্রোডাকের (product) লিংক ভিডিওর ডেসক্রিপশন বক্সে দেওয়া থাকবে সেই লিংকে ক্লিক করে কেউ যদি কোনো প্রোডাক্ট কিনে তাহলে ভিডিওর মালিক সেই প্রোডাক্টের টাকা থেকে ৪-৫% বা আরো বেশি কমিশন পাবে।

৩.প্রোডাক্ট রিভিউ. কোনো একটা কোম্পানি বা দোকানে নতুন একটা প্রোডাক্ট আসলে সেই প্রোডাক্ট সম্পর্কে বিস্তারিত নিয়ে ভিডিও তৈরী করলে কোম্পানি /দোকান মালিক ভিডিও ক্রিয়েটরকে নির্দিষ্ট একটা এমাউন্ট দিয়ে দেয়।
 

বাংলাদেশ থেকে ইউটিউব মনিটাইজেশন


ইউটিউব চ্যানেল মনিটাইজেশন থেকে টাকা ইনকাম করার জন্য ইউটিবের কিছু নিয়ম কানুন রয়েছে।আপনি ইউটিবে যত গুলু ভিডিও শেয়ার করবেন সব গুলু ভিডিও মিলে আপনার চ্যানেলে চার হাজার ঘন্টা ওয়াচটাইম মানুষ দেখতে হবে ও এক হাজার সাবস্ক্রাইবার বা ফলোয়ার থাকতে হবে তাহলেই আপনি ইউটিউব মনিটাইজেশনের জন্য আবেদন করতে পারবেন। আবেদন করার পর আপনার ইউটিব চ্যানেলের সবকিছু ঠিক থাকলে ২ -৭ দিনের ভিতরে  আপনাকে একটা গুগল এডসেন্স থেকে মনিটাইজেশন দিয়ে দিবে এবং আপনার ভিডিও গুলুতে মনিটাইজেশন অন করে দিলেই এড আসা শুরু হবে।

ইনকাম শুরু হওয়ার পর যখন আপনার গুগল এডসেন্স একাউন্টে ১০ ডলার হবে তখন গুগল আপনার ঠিকানায় একটা চিঠি পাটাবে আপনার এডসেন্স একাউন্ট পিন ভেরিফাই করার জন্য।পিন ভেরিফাই করার জন্য চিঠিটা পাটাবে আপনি একাউন্ট খোলার সময় যেই ঠিকানাটা দিবেন ঐ ঠিকানায়।পিন ভেরিফাই করা হলে আপনাকে আপনার ব্যাংক একাউন্ট এড করতে হবে।তারপর যখন আপনার এডসেন্স একাউন্টে ১০০ ডলার হবে তখন অটোমেটিক গুগল আপনার একাউন্টে ডলার কনভার্ট করে আপনার একাউন্টে পাটিয়ে দিবে।


ইউটিউব কত ভিউ কত টাকা দেয়।


ইউটিউবের ভিডিও ভিউ, লাইক, কমেন্ট বা শেয়ার করলে ভিডিও ক্রিয়েটর কোনো টাকা পায়না।ভিডিওর মালিক টাকা পাবে আমরা যখন ভিডিও দেখি তখন ভিডিওর উপরে কিছু এড আসে ঐ এড গুলুর উপরে আমরা যদি ক্লিক করি তাহলে ভিডিওর মালিক টাকা পাবে। এবং এই এড গুলু আসবে যখন আপনার চ্যানেলের সব গুলু ভিডিও মিলিয়ে ৪ হাজার ঘন্টা ওয়াচটাইম মানুষ দেখবে ও আপনার ১ হাজার ফলোয়ার হবে।

ইউটিউবে কী কী বিষয়ে ভিডিও তৈরী করলে ভালো হবে


ইউটিবে কাজ করার জন্য নিজের তৈরী সব ধরনের ভিডিও আপনি ইউটিবে শেয়ার করতে পারবেন।সব থেকে ভালো হয় আপনি যেই বিষয়ে কাজ ভালো পারেন তা নিয়ে ভিডিও তৈরী করা।যেই ধরনের ভিডিওই তৈরী করেন না কেনো ভিডিও গুলু যেনো কোয়ালিটি ফুল হয়।

ইউটিউবে কাজ করার জন্য আমি যেই বিষয় গুলুর বল্লাম আপনাদের কাছে এই বিষয় গুলু অনেক কঠিন মনে হবে।কিন্তু কাজ শুরু করলে আস্তে আস্তে সব কিছু অনেক সহজ হবে যাবে।
Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url